রবিবার, ১৬ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ২রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ||
  • প্রচ্ছদ
  • অন্যান্য
  • ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটের কারণে পাঠদান ব্যাহত
  • ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষক সংকটের কারণে পাঠদান ব্যাহত

    নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

    দীর্ঘদিন ধরে শিক্ষক সংকটের কারণে ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। সরেজমিনে গিয়ে ও ঘুরে দেখা গেল, শহরের একাডেমি রোড সংলগ্ন ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মোট শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১’হাজার ৫০ জন। হাজারখানেক শিক্ষার্থীর পাঠদানের জন্য প্রধান শিক্ষকসহ মোট শিক্ষকের সংখ্যা ১২ জন। কর্তব্যরত শিক্ষকের মধ্যে রুমা রানী দাস, রিমি সাহা, হ্যাপী মুখার্জি ও লিপি রানী প্রসাদীসহ মোট ৪জন হিন্দু শিক্ষক আছেন। ১২ জন শিক্ষকের মধ্যে মাএ ৮জন শিক্ষক হচ্ছে মুসলিম ফলে বেশিরভাগ সময় ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের পাঠদান করতে হয় হিন্দু শিক্ষকদের।
    খোঁজ নিয়ে জানা গেল, বছরের পর বছর সহকারী শিক্ষকের শূন্য পদগুলো পূরণ হচ্ছে না ফলে পাঠদান কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এতে শিক্ষার্থীরা যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, তেমনি বাড়তি চাপ সামাল দিতে গিয়ে হিমশিম খাচ্ছেন শিক্ষকরা। বিদ্যালয়টির শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যদের সাথে কথা বললে তারাও এই বিষয় নিয়ে বিরক্তবোধ করেন।
    বারবার তারা সংশ্লিষ্ট দপ্তর, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে ধরনা দিলেও এই সমস্যার সমাধান হচ্ছে না তাই এ বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যরা ও কর্তব্যরত শিক্ষকরা। ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি থেকে পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত মোট ১৮টি শাখা রয়েছে। বর্তমান সরকারের সকল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একই রুটিন মোতাবেক ইসলাম শিক্ষা ক্লাসগুলো করতে গিয়ে মূলত এই স্কুলের হিন্দু শিক্ষকরা ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের ক্লাস করতে বাধ্য হচ্ছেন। সহকারী উপজেলা শিক্ষা অফিসার মো. আবদুল গনি জানান, বদলির আইন মোতাবেক আমাদেরকে কাজ করতে হয়। ইতোমধ্যে হিন্দু শিক্ষক দিয়ে ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের ক্লাস নেওয়া হচ্ছে, বিষয়টি সমন্ধে আমি অবগত আছি। বিষয়টি নিরসনকল্পে কাজ করবেন বলে তিনি জানান।
    ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. গিয়াস উদ্দিন দৈনিক আমার ফেনী’কে জানান, ১’হাজার ৫০ জন শিক্ষার্থীকে মাএ ১২ জন শিক্ষক পাঠদান করতে গিয়ে প্রতিনিয়ত হিমশিম খাচ্ছে। একজন মুসলিম হয়ে হিন্দু শিক্ষক দিয়ে ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের ক্লাস করানোর বিষয়টি আমার কাছেও খারাপ লাগে। মূলত শিক্ষক সংকটের কারণে হিন্দু শিক্ষক দিয়ে ইসলাম শিক্ষা বিষয়ের ক্লাস নেয়া হচ্ছে বলে জানান তিনি। ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাহেদা আক্তার বলেন, মাত্রাতিরিক্ত শিক্ষার্থীর কারণে আমরা অনেক সময় শুক্র ও শনিবার বন্ধের দিনেও ছাত্রদের উপবৃত্তির ও দাপ্তরিক কাজ করতে স্কুলে আসতে হয়।
    ফেনী জি.এ.একাডেমী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাহার উদ্দিন বাহার জানান, অনেকবার আমি এই স্কুলের শিক্ষক সংকটের বিষয়টি জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মহোদয়কে অবহিত করেছি। তিনি আরোও জানান, শিক্ষক সংকটের কারণে চরমভাবে পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে।অচিরে ফেনী শহরের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে নতুন করে শিক্ষক দিবে, এমন আশায় দিন গুনছেন এখানকার শিক্ষক, অভিভাবক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্যরা।

    আরও পড়ুন

    error: Please Contact: 01822 976776 !!