সোমবার, ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ||
  • প্রচ্ছদ
  • এক্সক্লুসিভ >> ছাগলনাইয়া >> ফেনী
  • ছাগলনাইয়ায় সেপটিক ট্যাংকে নেমে ২ শ্রমিকের মৃত্যু
  • ছাগলনাইয়ায় সেপটিক ট্যাংকে নেমে ২ শ্রমিকের মৃত্যু

    ছাগলনাইয়া প্রতিনিধিঃ

    ছাগলনাইয়াতে সেপটিক ট্যাংকের ভেতরের নির্মাণসামগ্রী খুলতে গিয়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার সকালে ছাগলনাইয়া পৌরসভার থানা পাড়া এলাকায় কুয়েত প্রবাসী শহিদুল ইসলাম মির্জার নির্মাণাধীন বাড়িতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।
    মৃত দুজন হলেন, বাগেরহাটের কচুয়া থানার সাংদিয়া গ্রামের রবীন্দ্র দাসের ছেলে বিকাশ চন্দ্র দাস আকাশ (৩৫), অন্যজন খাগড়াছড়ি জেলার রামগড় থানার রামগড় করইয়া বাগান এলাকার ছেরাজুল হকের ছেলে মাইন উদ্দিন(২৫)।
    পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, দুই মাস আগে ওই এলাকার শহিদুলের বাড়ির সেপটিক ট্যাংক ছাদ ঢালাই দেওয়া হয়। শুক্রবার ওই সেপটিক ট্যাংকের ভেতরের বাঁশ কাঠসহ নির্মাণসামগ্রী খুলতে নামেন আকাশ ও মাইন উদ্দিন। এরপর থেকে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। শ্রমিকদের স্বজনরা ঠিকাদারকে বিষয়টি জানায়। পরে আজ শনিবার সকালে ঠিকাদার ও স্বজনরা ঘটনাস্থলে গিয়ে সেপটিক ট্যাংকের ভেতরে মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে ছাগলনাইয়া ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেপটিক ট্যাংকের ভেতর থেকে দুজনের মরদেহ উদ্ধার করে।
    ছাগলনাইয়া ফায়ার স্টেশনের স্টেশন অফিসার মিরাজুল ইসলাম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সেপটিক ট্যাংকের ভেতর জমে থাকা বিষাক্ত গ্যাসের কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে।ছাগলনাইয়া থানার ওসি সুদ্বীপ রায় বলেন, নতুন ট্যাংকির সেন্টারিং খোলার জন্য ওই শ্রমিকরা ভেতরে প্রবেশ করেন। এ সময় গ্যাসের বিষক্রিয়ায় দম বন্ধ হয়ে তারা মারা যান।
    ছাগলনাইয়া-পরশুরাম সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মো. ওয়ালী উল্লাহ বলেন, একজন শ্রমিক সেন্টারিং খোলার জন্য নিচে নামলে সেখানে গ্যাসে আক্রান্ত হয়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। তাকে উদ্ধার করতে আরেকজন শ্রমিক সেখানে নামলে তিনিও পানিতে ডুবে মারা যান। পুরো ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ময়নাতদন্তের জন্য তাদের ফেনী জেনারেল হাসপাতালে মর্গে পাঠানো হয়েছে।

    আরও পড়ুন

    error: Please Contact: 01822 976776 !!