শুক্রবার, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ||
  • প্রচ্ছদ
  • ছাগলনাইয়া >> দাগনভূঞা >> পরশুরাম >> ফুলগাজী >> ফেনী >> ফেনী সদর >> সোনাগাজী >> স্বাস্থ্য
  • করোনা ফেনীতে একলাফে ৩শ’র রেকর্ড ছাড়াল, নতুন আক্রান্ত ৪৯ জন
  • করোনা ফেনীতে একলাফে ৩শ’র রেকর্ড ছাড়াল, নতুন আক্রান্ত ৪৯ জন

    রেকর্ড গড়ে ৩শ অতিক্রম করল আক্রান্তের সংখ্যা
    এ পর্যন্ত ফেনীতে একদিনে সর্বোচ্চ ৪৯ জন করোনা রোগী শনাক্তের মধ্য দিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা ৩শ অতিক্রম করেছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩১৩ জনে।
    আজ সোমবার (৮ জুন) দুপুরে এ তথ্য জানান জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ সাজ্জাদ হোসেন।
    তিনি জানান, নতুন শনাক্তকৃতদের মধ্যে ফেনী সদর ২৯ জন, ছাগলনাইয়া ৯ জন, দাগনভূইয়া ৭ জন এবং সোনাগাজী ৩ জন রয়েছেন। এছাড়া ফেনী জেলা বাইরের বাসিন্দা একজন রয়েছেন, ফেনীতে যার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল।
    সূত্র জানায়, ফেনী সদরের নতুন শনাক্তকৃতদের মধ্যে একজন চিকিৎসক, দুজন স্বাস্থ্যকর্মী ও এক গণমাধ্যমকর্মীর স্ত্রী রয়েছেন। এ নিয়ে ফেনী সদরের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১শ অতিক্রম করেছে।
    এ নিয়ে গত ১০ দিনে মোট ২২০জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছে।
    দাগনভূঞা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ রুবাইয়েত বিন করিম জানান, নতুন শনাক্তকৃতদের মধ্যে ১জন পৌরসভার, ১ জন পূর্বচন্দ্রপুরের, ৪জন রামনগরের ও ১ জন ইয়াকুবপুরের বাসিন্দা। এ নিয়ে উপজেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁিড়য়েছে ৯১জনে। এর মধ্যে ১১জন সুস্থ হয়েছেন। এছাড়া এ উপজেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত একজনের মৃত্যু হয়েছে। উপজেলায় সংগৃহীত মোট ৭৩২টি নমুনার মধ্যে ৫৩২টির ফলাফলে উক্ত সংখ্যক শনাক্ত হয়েছে।
    অন্যদিকে ছাগলনাইয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ শিহাব উদ্দিন জানান, নতুন শনাক্তকৃত ৯ জনের মধ্যে দৌলতপুরে ১ জন, পশ্চিম ছাগলনাইয়ার মিয়াজি বাড়িতে ১ জন, দারোগার হাটের মজুমদার বাড়িতে ১ জন, মটুয়ায় ১ জন, বাঁশপাড়ায় ২ জন, শান্তির হাটের কুহুমায় ভুইয়া বাড়িতে ১ জন রয়েছেন। এছাড়া শুভপুরে ১ জন পাওয়া গেছে কিন্তু তার নম্বর বন্ধ রয়েছে।

    এছাড়া সোনাগাজী উপজেলায় নতুন করে আরও ৩জন শনাক্ত হয়েছেন।
    জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, এ পর্যন্ত জেলায় মোট শনাক্তকৃত রোগীদের মধ্যে সদরে সর্বোচ্চ সংখ্যক রয়েছে ১২১জন। শনাক্তকৃত সংখ্যার ভিত্তিতে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দাগনভুঞা উপজেলায়। এ উপজেলায় এ পর্যন্ত মোট ৯১ জন শনাক্ত হয়েছে। এরপরে রয়েছে সোনাগাজীতে ৩৯জন, ছাগলনাইয়ায় ৩৬জন, ফুলগাজীতে ১০জন ও পরশুরামে ৯জন। এছাড়া আরও ৬জন রয়েছেন ফেনী জেলার বাইরের বাসিন্দা, ফেনীতে তাদের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছিল।
    জেলা করোনা নিয়ন্ত্রণকক্ষের সমন্বয়ক ডা. শরফুদ্দিন মাহমুদ জানান, গতকাল পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে ৬৮ জন সুস্থ হয়েছেন। এদের মধ্যে সদরে ২৫ জন, সোনাগাজীতে ৮ জন, ছাগলনাইয়ায় ১৩ জন, দাগনভূঞায় ১০ জন, পরশুরামে ৭ জন ও ফুলগাজীতে ৫ জন সুস্থ হয়েছেন। আর জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৭জন।
    এর আগে গত ১৬ এপ্রিল জেলার ছাগলাইনাইয়া উপজেলায় এক যুবকের শরীরে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। মাঝখানে আক্রান্তের হার সীমিত থাকলেও মে তে এসে তা লাফিয়ে লাফিয়ে ক্রমশ বাড়তে শুরু করেছে। এর আগে ১৬ এপ্রিল হতে ৯ মে পর্যন্ত ফেনীতে শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা সীমাবদ্ধ ছিল ৭ জনে।

    স্বাস্থ্য বিভাগ প্রদত্ত তথ্যমতে, ২৯ মে শুক্রবার ফেনীতে একদিনে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক ৪৭ জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়। এর আগে শুক্রবার (৫ জুন) একদিনে ৩২জন করোনা রোগী শনাক্ত করা হয়েছিল।
    সূত্র জানায়, আক্রান্তদের মাঝে শিশু, কিশোর, যুবক, বৃদ্ধসহ স্বাস্থ্যকর্মী, সরকারী কর্মকর্তা, ট্রাফিক পুলিশ, ব্যাংক কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী, শিক্ষকসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ রয়েছেন।

    আরও পড়ুন

    error: Please Contact: 01822 976776 !!