শনিবার, ২০শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ ||
  • প্রচ্ছদ
  • ফেনী >> ফেনী সদর
  • করোনায় ফেনীতে এক প্রবাসীর ধুমধামে বাল্যবিয়ের চেষ্টা,বর-হবু শ্বশুরকে জরিমানা ৩৮ হাজার
  • করোনায় ফেনীতে এক প্রবাসীর ধুমধামে বাল্যবিয়ের চেষ্টা,বর-হবু শ্বশুরকে জরিমানা ৩৮ হাজার

    করোনা চলমান পরিস্থিতিতে এক ইতালি প্রবাসী পাত্রের সাথে অপ্রাপ্ত বয়স্ক পাত্রীর ধুমধাম করে বিয়ের আয়োজন করায় ৩৮ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। শুক্রবার সন্ধ্যায় শহরের রাজাঝির দীঘি সংলগ্ন ফাইভ স্টার রেস্টুরেন্টের ২য় তলায় সামাজিক দুরুত্ব অমান্যকরে বিয়ের আয়োজন করায় অর্থদণ্ড করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো:মনিরুজ্জামান।

    নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে শহরের রাজাঝির দীঘি সংলগ্ন ফাইভ স্টার রেস্টুরেন্টের ২য় তলায় গিয়ে দেখা যায়, সেখানে প্রায় ৬০ জন লোক সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে জনসমাগমের মাধ্যমে বাল্য বিবাহের জন্য নির্ধারিত নিমন্ত্রণে অংশগ্রহণ করেছেন।এসময় তাদের জনসমাগম না করাসহ সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার জন্য সতর্ক করে খাবারগুলো জব্দ করা হয়।

    পরে সেখান থেকে খবর পেয়ে শহরের হাজারী রোডের ইতালি ফেরত মো: নাজমুল হোসেন নামে পাত্রের বাসায় গিয়ে দেখা যায় অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া এক ছাত্রীর সঙ্গে বাল্যবিবাহের প্রস্তুতি নিচ্ছে পরিবারটি।এসময় পাত্রের অভিভাবককে বাল্যবিবাহের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তারা অপরাধ স্বীকার করে এবং ভবিষ্যতে অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক কোন পাত্রীকে বিয়ে করবে না বলে মুচলেকা প্রদান করে।একপর্যায় বাল্য বিবাহের চেষ্টা ও জনসমাগম করার অপরাধে ইতালি ফেরৎ সদর উপজেলার ফরহাদ নগর ইউনিয়নের মো: নাজমুল হোসেনকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

    পরবর্তীতে কাজিরবাগ ইউনিয়নের পশ্চিম সোনাপুরে চেয়ারম্যান ও মেম্বারের সহযোগিতায় পাত্রীর বাসায় গিয়ে জানা যায় পাত্রী অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী যার বয়স মাত্র ১৫ বছর এবং মেয়েটির বাবা মৃত।পরে মেয়েটির মা অপরাধ স্বীকার করে মুচলেকা প্রদান করে।এসময় আর্থিক অবস্থা বিবেচনা করে মেয়েটির পরিবারকে কোন জরিমানা না করে মৌখিকভাবে সতর্ক করা হয় এবং মেয়েটির মার বিধবা ভাতা করার জন্য চেয়ারম্যানকে তাৎক্ষণিক নির্দেশ দেয়া হয়।

    এছাড়াও ফাইভস্টার মালিক কে এরূপ জনসমাগমে সহায়তা করার অপরাধে ৮ হাজার টাকা সহ সর্বমোট ৩৮ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও আদায় করা হয়। অভিযানে জেলা পুলিশের একটি টিম সহায়তা করে।

    আরও পড়ুন

    error: Please Contact: 01822 976776 !!